দক্ষিন মংডূতে গদুসারা গ্রামে রাখাইনরা আগুন লাগিয়ে দিয়েছে

মংডূ,আরাকান। দক্ষিন মংডূর হামিদুল হক জানান, রাখাইনরা রাত ৩টার দিকে পূর্ব গদুসারা গ্রামে আগুন
লাগিয়ে দেয়।
উক্ত আগুনে দুটি বাড়ি পুড়ে যায়-বাড়ির ভিতরে থাকা কোন কিছু রক্ষা করা সম্ভব হয় নি।
উক্ত বাড়ির মালিক গফুর ও আব্দুর রাজ্জাক -পিতা পুত্র বলে হামিদুল হক যোগ করেন।
উক্ত বাড়িগুলো পূর্ব গদুসারা গ্রামের দক্ষিন প্রান্তে অবস্থত ছিল এবং নাতালা গ্রাম ও মংডু-
আলি থান ক সড়ক থেকে তেমন দূরত্বে ছিল না।দু চি ইয়া তান গ্রাম যেখানে অনেক রোহিঙাকে
হত্যা করা হয়েছিল তা থেকে উক্ত গ্রাম তেমন দূরত্বে ছিল না।
কতৃপক্ষ আগুনের কোন দায় দায়িত্ব নিতে চায় নি এবং এই আগুনের জন্য যত্নশীলতার অভাবকে
দায়ী করে।
কিন্তু প্রতক্ষদর্শীরা বলেন,রাখাইনরা আগুন ধরিয়ে দেয় এবং তাদের দেখতে পেয়ে আগুন প্রদানকারীরা
পাহাড়ের দিকে পালিয়ে যায়।
এর আগে, জেলা পুলিশ প্রধান লেঃ কর্নেল সে তিন এবং তার সৈনিকরা পা দিন গ্রামে যান ও আব্দুল রহিম
এর ঘরে গিয়ে তা লুট করে ও নারী সদস্যদের ধর্ষনের চেষ্টা চালায়, পুলিশ ফোর্স রহিমের ঘরের দুই জন
নারীকে তুলে নিয়ে যায় ও এইটা বলছে যে রহিম দু চি ইয়া থান এর সাথে জড়িত, কতৃপক্ষ রহিমকে
খুঁজছে কিন্তু সেখানে তার পরিবারের সদস্যদের দোষ কি! প্রশ্ন তুলেন একজন মানবাধিকার কর্মী।
কতৃপক্ষের কতিপয় দোসর এই কাজের সাথে রহিমকে জড়ানোর চেষ্টা করছে বলে যোগ করেন উক্ত মানবাধিকার কর্মী।

Leave a Reply