সীমান্তে রোহিঙা নারী গণধর্ষন

টেকনাফ,বাংলাদেশ।গত ২১ এপ্রিল বিকাল চারটায় জলাধার থেকে পানি নিতে গেলে
লেদা ক্যাম্পের একজন অনিবন্ধিত শরনার্থী একদল স্থানীয় তরুন এর হাতে গণধর্ষনের
স্বীকার হন।
ভুক্তভোগী বেগম(২৭),স্বামীঃপ্রয়াত রশিদ(দুইটি ছদ্ম নাম),অন্যান্য শরনার্থী শিশুদের সাথে
পানি নিতে গেলে স্থানীয়  মাস্তান তরুণরা তাকে অপহরন করে,পরে গভীর জঙলের ভিতর নিয়ে গিয়ে তাকে তারা ধর্ষন
করে,পরে তারা পালিয়ে যায়।
ভুক্তভোগীকে ক্যাম্প হাসপাতালে মুসলিম এইডের চিকিৎসক সেবা প্রদান করে।
শরনার্থীরা আরো জানায়,এলাকার ভবুঘরে তরুন যারা আলি কালি গ্রামের বাসিন্দা তারা এই কাজ করেছে,উল্লেখ্য
ক্যাম্পে পানীয় সমস্যার কারণেশরনার্থীরা দূর থেকে পানি আনতে বাধ্য হচ্ছে এবং অপ্রীতিকর সমস্যার মুখে পড়ছেন।
এছাড়া অনিবন্ধিত শরনার্থীদের নিরাপত্তা না থাকায় তারা ভীত,বিশেষ করে নারীরা স্থানীয় গুন্ডাদের উৎপাতে অস্বস্তিকর
ভাবে জীবনযাপন করছেন।
রোহিঙারা নিরাপত্তার কারণে বার্মা থেকে বাংলাদেশে এসেছে কারণ এটি মুসলিম দেশ,কিন্তু এখানেও তারা একইরকম
সমস্যার মুখোমুখি হচ্ছে।
কতৃপক্ষকে এই ব্যাপারে অভিহিত করা হলে তারা জানায় এই ব্যাপারে তারা ব্যবস্থা নিবেন।

Leave a Reply