শরনার্থী ক্যাম্পে নিউমোনিয়া ও অন্যান্য রোগ ছড়িয়ে পড়েছে

টেকনাফ,বাংলাদেশ।নিউমোনিয়া,জ্বর,কফ,পেট ব্যথা ও ডায়রিয়া শরনার্থী শিশুদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে
বলে জানান একজন স্থানীয় ডাক্তার।


অনেক অনিবন্ধিত শরনার্থী শিশু যারা লেদা ও কুতুপালং ক্যাম্পে এ আছেন তারা গত ডিসেম্বর ২০১২ থেকে
অনেক অসুখে ভুগছেন।

শরনার্থীরা বলেছেন যে,ভুক্তভোগী শিশুদের আর্ন্তজাতিক এনজিও মেডিসিন সেন্স ফ্রন্টিয়ার্স(এম এস এফ) ও মুসলিম
এইড সাহায্য দিচ্ছে।
অসুস্থদের বেশিরভাগ এর বয়স (১ থেকে ৭) এর মধ্যে।
কুতুপালং ক্যাম্পটি পাহাড়ের ঢালে ও মাঠে অবস্থিত ও দমকা হাওয়ায় প্লাস্টিক বাশ ও ডাল দিয়ে বানানো ঘরগুলি ভেঙ্গে
যেতে পারে।


শরনার্থী স্বাস্থ কর্মী জানান ,ক্যাম্পে প্রচুর ঠান্ডা হবার কারণে এবং যেহেতু এটি পাহাড় ও নাফ নদীর মাঝে ঠান্ডাটা আরো বেশী
লাগছে এবং শিশূদের বেশীরভাগ নিউমোনিয়াতে আক্রান্ত।

এছাড়া নিবন্ধিত নয়াপাড়া ও কুতুপালং ক্যাম্পের অনেক শরনার্থী ঠান্ডা ও নিউমোনিয়া এবং কফ এ আক্রান্ত হচ্ছেন।

Leave a Reply