মংডূর উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে রোহিঙ্গাদের সাক্ষাৎ

মংডূ,আরাকান।মংডূর উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা গত ১৯ অক্টোবর মংডূর অধিবাসীদের সাথে বৈঠকে
মিলিত হন বলে জানান একজন ব্যবসায়ী।

"দক্ষিন মংডুর আলি থন ক গ্রাম এর অধিবাসীদের গতকাল জোরপূর্বক ডেকে পাঠানো হয় বৈঠকে
অংশ নেয়ার জন্য যদিও অনেক এ বাধ্য হয়ে অংশ নেয়,কারণ তাদের এখানে অংশ নেয়ার
ইচ্ছা ছিল না,কিন্তু নিরাপত্তা বাহিনী তাদের ঘরে ঘরে গিয়ে তাদের এনে অংশ নিতে বাধ্য করে।
উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাঃ কর্নেল মং মং উ (নাসাকা পরিচালক),জেলা প্রশাসক উ অং মিন্ত স,জেলা পুলিশ
কর্মকর্তা উ কন লা সান, উপজেলা প্রশাসক উ কি সান অংশ নেন।
জেলা পুলিশ প্রধান গ্রামবাসীদের বলেন,"কেউ লাঠি,ছুরি,চাপাতি,বর্শা নিয়ে রাস্তায় যেতে অথবা ঘরে
রাখতে পারবে না।অন্যথায় কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
রাখাইনদের সাথে একত্রে বাস করতে হবে এবং স্কুলে ছেলেমেয়েদের পাঠাতে হবে বলে জানান উ অং
মিন্ত সো,এছাড়া যাবতীয় আইন মেনে চলতে হবে জানান তিনি।
নাসাকা ডিরেক্টর জানান,"বার্মাতে যুগ যুগ ধরে বাস করে আসলেও নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করলে
১৯৮২এর আইন অনুযায়ী তা করতে হবে।
এছাড়া একজন রোহিঙ্গা কতৃপক্ষকে প্রশ্ন করেন যে,কেন কতৃপক্ষ রোহিঙাদের আটক করছে যেখানে 
তাদের কেউ কোন কিছুতে যুক্ত ছিল না কোন অবৈধ কাজ ও করেনি। তখন উপস্থিত বক্তারা বলেন
তাদের বিরূদ্ধে অভিযোগ ছিল দেখে গ্রেফতার করা হয়েছে।
রোহিঙ্গা মুসলিমরা রাখাইনদের সাথে বাস করে আসছে অনেকদিন ধরে কিন্তু কতৃপক্ষ যেভাবে বলেছে সেভাবে
তারা বাস করতে চাচ্ছেন না,এবং রাখাইনদের ন্যায় একই অধিকার রোহীঙ্গাদের দিতে হবে এবং আরাকানের
আদিবাসীদের মাঝে আমরাও আছি।
রোহিঙাদের উপর মানসিক নির্যাতন এর আরেকটি উপায় হল এইটি।

Leave a Reply