রেঙুন এ ওআইসি মানবাধিকার বিষয়ক অফিস স্থাপনে বার্মিজ সরকার রাজী হয়েছে

চট্টগ্রাম,বাংলাদেশ।বার্মিজ সরকার ও ওআইসি  রেঙুন এ মানবাধিকার উন্নয়ন ও সাহায্য বিষয়ক অফিস
স্থাপনের জন্য রাজি হয়েছে বএ জানান তারিক বাকিত যা ওআইসি এর ৩৭ নাম্বার নিউজলেটার এ প্রকাশিত হয়েছে।
মহাসচিব একমেলেদ্দিন ইহসানগুলো কতৃক প্রেরিত এই মিশন চুক্তিটি সম্পাদন করেছে যাকে রাষ্ট্রদূত
তারিক স্বাগত জানান,গত ১২ সেপ্টেম্বর জেদ্দার ওআইসি সচিবালয় এ এই জিনিসগুলো তুলে ধরা হয়।
উল্লেখ্য এই জিনিসগুলো তখন এল যখন মক্কা সামিটে নেওয়া স্বিদ্বান্তগুলো প্রয়োগ করা শুরু হয়েছে।
প্রতিনিধি দল বার্মাতে তাদের মিশন অব্যাহত রেখেছে এবং সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করেছে যাদের মধ্যে আছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী,সীমান্তমন্ত্রী,সমাজ উন্নয়ন মন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও আছেন,এছাড়া তারা অনেক জায়গা
ও পরিদর্শন করেন।
উল্লেখ্য এই মিশনটি গত ৫ সেপ্টেম্বর দশদিন এর সফরে বাংলাদেশে আসেন যাতে তারা রোহিঙাদের
বিরূদ্ধে সংঘটিত নিপীড়ন,নির্যাতন,সহিংসতার ব্যাপারে তথ্য অনুসন্ধান ও মানবাধিকার লঙ্ঘন যা
হচ্ছে সে সম্পর্কে তথ্য নিতে পারেন।
উল্লেখ্য এই মিশনটি না পিন দ তে যাবেন সরকারী কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করতে এবং অতঃপর তারা রাখাইন এর গ্রামসমূহ পরিদর্শন করবেন এছাড়া তারা মংডু ও আকিয়াব ও পরিদর্শন করবেন।
এই মিশন শেষ হলে ,ওআইসি মহাসচিব একমেলেউদিদন ইহসানগুলু এর আরাকান পরিদর্শনের সুযোগ প্রশস্ত হবে জানায় ওআইসি নিউজলেটার ৩৬।
ওআইসি এর সিনিয়র অফিসাররা জানান,রোহিঙাদের বিরূদ্ধে হায়েনার মত বার্মিজ সরকারের আচরনের
তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন মহাসচিব তাদের সাথে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে,যা গত ৯ সেপ্টেম্বর সৌদি গেজেট
এর ওয়েবে প্রাপ্ত।
উক্ত সাইট আরো উল্লেখ করে,”এই আচরনের মধ্যে হত্যা উচ্ছেদ রয়েছে যা গত কয়েক বছর ধরে হয়ে আসছে।”

Leave a Reply