বিজিবি ও কোস্ট গার্ড সীমান্তে রোহিঙ্গাদের আটক করেছে

টেকনাফ,বাংলাদেশ।বাংলাদেশ বোর্ডার গার্ড বিজিবি গত ২ সেপ্টেম্বর সীমান্তের বিভিন্ন এলাকা থেকে ২৭ জন রোহিঙাকে
গ্রেফতার করেছে বলে জানান টেকনাফের একজন স্থানীয়।”তাদের নে টং,জদিমুরা,নয়াপাড়া ও হ্নীলা থেকে গ্রেফতার
করার হয়।”
গতকাল সকালে যখন তারা বার্মা বাংলাদেশ সীমান্ত ক্রস করছিল তখন তাদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতার এর পর তাদের দুপুরে বার্মাতে ফেরত দেওয়া হয়।
এছাড়া বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সেন্ট মার্টিং থেকে দুজন রোহিঙা ও তাদের আশ্রয়দাতা একজন স্থানীয়কে গত এক সেপ্টেম্বর
গ্রেফতার করে।
আটককৃতদের মধ্যে আছেন এরশাদ উল্লাহ এর পুত্র আমান উল্লাহ(৪৫) ও হাবিবুর রহমান এর পুত্র মোহাম্মদ ইব্রাহিম(৪০),
তারা উভয়েই আলি তন ক এর বাসিন্দা মংডূ এর।
সেন্ট মার্টিনের বাসিন্দা আব্দুর রহমান(৪৫) পিতা লাল মিয়া, তাকে গ্রেফতার করা হয় এই দুইজনকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য,নাসাকার একজন ঘনিষ্ঠ সহযোগী জানান এই দুইজনকে বাংলাদেশে নাসাকা পাঠিয়েছে নেভী ও আর্মির অবস্থা পর্যবেক্ষন করতে।
তাদেরকে টেকনাফ থানার পুলিশের কাছে সোর্পদ করা হয় বলে জানায় একাধিক সুত্র।
সুত্র আরো জানায়,প্রচুর রোহিঙ্গা বাংলাদেশ এ আসছে বাংলাদেশ কতৃপক্ষ থেকে কোন কাগজ ছাড়াই,কারণ বার্মার
আরাকানে জাতিগত বিদ্বেষ ও দাঙার কারণে সেখানে রোহিঙ্গাদের অবস্থান করা কষ্টকর হয়ে যাচ্ছে,প্রায় ১০০০০ রোহিঙা
মুসলিম  বার্মিজ নিরাপত্তা বাহিনী ও মগদের হাতে প্রান হারিয়েছেন এবং অনেকের ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।বাংলাদেশ রোহিঙাদের বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দিচ্ছে না গত ৮ জুন হতে ,তাই তাদের আটক করে বার্মাতে ফেরত
পাঠানো হচ্ছে,যা সম্পন্ন হচ্ছে পুলিশ ,বিজিবি ও কোস্টগার্ডের তত্ত্বাবধানে।

Leave a Reply