উত্তর মংডুতে গ্রামবাসীদের থেকে নাসাকার অর্থ আদায়

মংডূ,আরাকান।বার্মিজ সীমান্তরক্ষী বাহিনী নাসাকা উত্তর মংডূর গ্রামবাসীদের থেকে অর্থ আদায় করছে,তাদেরকে নাসাকা
হুমকি দিচ্ছে এই বলে অর্থ আদায় না করলে তাদেরকে অতিথি রিসিভ,মোবাইল সেট ,ও ৮ জুনের ঘটনার সাথে জড়িয়ে দেওয়া হবে।
৩১ আগস্ট ও ১ সেপ্টেম্বর একদল নাসাকা যাদের নেতৃত্বে ছিলেন নারিবিল ক্যাম্পের ক্যাপ্টেন ,গ্রাম চেয়ারম্যান কলিমউল্লাহ(৩৫),১০০ ঘরের প্রধান সলিম উল্লাহ উক্ত গ্রামে যান এবং দরজা খুলতে বলে।নাসাকার শব্দ শুনে গ্রামবাসীরা দরজা খুলতে
না চাইলে তারা শারাপা বলে পরিচয় দিলে দরজার খোলার পর তাদের আটক করা হয় ও অর্থ আদায় করা হয়।
আটককৃতদের দক্ষিন নারিবিলের  অসিউর রহমানের পুত্র শামসুল আলম(৫০),সৈয়দ হুসেন এর পুত্র হাইদি রহমান(৪০),
বুশরা (৪৫) মোহাম্মদ কাসিমের স্ত্রী পূর্ব নারিবিল,পশ্চিম নারীবিল এর মোহাম্মদ সিদ্দিকের স্ত্রী মিসেস জোহরা(৩০),কবির
হুসেন এর পুত্র মোহাম্মদ রফিক(২০),পশ্চিম নারীবিল এর আব্দুল মাজিদের পুত্র মোহাম্মদ শফি(৭০)।
পরে ১০০০০০ ও ১৫০০০০০ ক্যত আদায়ের মাধ্যমে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়,যারা বেশী স্বচ্ছল তাদের থেকে ১৫০০০০
ক্যত করে আদায় করা হয় ও বাকিদের থেকে ১০০০০০ ক্যত করে আদায় করা হয়।
এছাড়া আদম পাচারকারী বলে দরিদ্র অশিক্ষিত রোহিঙাদের অভিযুক্ত করে মানব পাচার নিয়ন্ত্রন দপ্তর অর্থ আদায় করছে
রোহিঙাদের থেকে।

Leave a Reply