আর্মির হাতে একজন নিহত ও আরো অনেকজন আহত

মংডূ,আরাকান। আর্মির হাতে একজন নিহত ও আরো অনেকে আহত হয়,ঘটনা ঘটে গতকাল রাত ১০টার দিকে
যখন লাম্বাগনা গ্রামে আর্মি গুলি বর্ষন করে জানান একজন গ্রামবাসী.
“আর্মি থারাকনবন গ্রামে অবস্থান নিয়েছে এবং উক্ত গ্রামের নতুন গ্রামবাসীদের সাথে লাম্বাগনা গ্রামে হামলা চালায়
এবং যখন তারা সাহায্যের জন্য  চিৎকার করলে আশেপাশের গ্রামবাসীরা তাদের সাহায্যের জন্য ছুটে আসে।”
“যখন গ্রামবাসীরা চিৎকার করে সাহায্যের জন্য তখন আর্মি গুলি চালায় এবং তাতে একজন গ্রামবাসী-আব্দুল সালাম পিতাঃআমির হুসেন ঘটনাস্থলে মারা যায় এবং আরো অনেকে আহত হয়।”
থারাকেনবন আর্মি স্টেশনের অফিসার নতুন নাতালা গ্রামবাসীদের আটকিয়ে রাখেন যখন তারা উক্ত গ্রাম আবার
হামলা করার চেষ্টা চালায় জানান একজন গ্রামবাসী।”
“রোহিঙারা গ্রামের ভিতরে বাস করছে কারণ আর্মি তাদের গ্রামের বাইরে যেতে দিচ্ছে না এবং যে সমস্ত গ্রামবাসী
আহত হয়েছে তাদের দেখতে যেতে পারছেন না এছাড়া আহত রোহিঙ্গারা চিকিৎসার জন্য বাইরে যেতে পারছেন না এবং তারা মারা যাবেন চিকিৎসা না পেলে।”
উচ্চ পদস্থ সামরিক কর্মকর্তা রোহিঙাদের বলেছেন যাতে তারা রাখাইনদের সাথে একত্রে বাস করে এবং
সেনারা তার কথা না শুনে রোহিঙাদের হত্যা সম্পত্তি লুট করার চেষ্টা করছে।
“কতৃপক্ষ রোহিঙ্গাদের বিরূদ্ধে তাদের অপরাধ লুকানোর চেষ্টা করছে এবং তারা রোহিঙ্গাদের হত্যা ও তাদের
সম্পত্তি লুট করছে রাখাইনদের সাথে।”
কতৃপক্ষ যদি দুইরকম আচরন করে তবে আরাকানে এই সমস্যার সমাধান হবে এবং আর্ন্তজাতিক সম্প্রদায় এর
এসব এলাকায় প্রবেশ করতে হবে এবং রোহিঙ্গাদের বিরূদ্ধে এই আচরনের বিরূদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।”

Leave a Reply