স্থানীয়রা শরনার্থী কাঠুরিয়াদের থেকে অর্থ আদায় করছে

উখিয়া,বাংলাদেশ।এক দল স্থানীয় গুন্ডা শরনার্থী কাঠুরিয়াদের থেকে অর্থ আদায় করছে
বলে জানান একজন শরনার্থী>
“স্থানীয় গুন্ডারা বনে গিয়ে নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত উভয় প্রকার শরনার্থী থেকে অর্থ
আদায় করছে,তারা জন প্রতি ২০-৩০ টাকা আদায় করছে।”
একজন শরনার্থী মোস্তাফা কামাল(৩০) যিনি কুতুপালং ক্যাম্পের জি ব্লকের বাসিন্দা
অন্য কয়েকজন শরনার্থীর সাথে গিয়ে কাঠ সংগ্রহ করতে গেলে তাদের থেকে অর্থ
সংগ্রহ করা চেষ্টা করে গত ২৪ জুলাই অর্থ না থাকায় তারা তা দিতে পারে নি।
এরপরদিন সকালে গুন্ডারা ছিল না অর্থ সংগ্রহ করতে,পরে কাঠ সংগ্রহ করে ফেরার
পর গুন্ডারা তার থেকে ২০০০ টাকা চান শাস্তি হিসেবে।
এরপর কুতুপালং এর একজন ডাকাত শাহজাহান মোস্তাফা কামালকে মারধোর করে
কুঠার দিয়ে ,পরে মারধোরে মোস্তাফা কামাল অচেতন হয়ে যায়।
পরে চিৎকার শুনে শরনার্থী তরুনরা এসে তাকে উদ্ধার করে এবং গুন্ডারা পালিয়ে যায়
তাদের দেখে,মোস্তাফাকে কুতুপালং শরনার্থী ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়।
শরনার্থীরা জানান কিছু গুন্ডা বহুদিন ধরে শরনার্থীদের থেকে অর্থ আদায় করছে।
এছাড়া স্থানীয়রা দুইটি ট্রাক ভর্তি চালের বস্তা লুট করে যখন একটি এনজিও অনিবন্ধিত
ক্যাম্পে চাল প্রদান করতে গত ২৬ জুলাই সকালে জানান একজন ক্যাম্প শরনার্থী।এনজিও
৩ ট্রাক চাল নিয়ে আসে এবং এক ট্রাক বিতরন করে ,অন্য দুই ট্রাক স্থানীয়রা লুন্ঠন করে এবং
তারা শরনার্থীদের মারধর করে যারা বাধা দিতে আসে।

Leave a Reply